অক্টোবর ২৫, ২০২১

মুক্তিকন্ঠ

ভয়েস অফ ফ্রিডম ফাইটার ১৯৭১

চন্দ্রগঞ্জে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, অব্যবস্থাপনায় আগুন নিয়ন্ত্রনে বিলম্ব !

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন চন্দ্রগঞ্জ বাজারে শনিবার রাত আনুমানিক ৩ দিকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড ঘটে। লক্ষ্মীপুরের একটি ফায়ার সার্ভিস ইউনিট ঘটনাস্থলে উপস্থিত  হলেও অগ্নিকান্ডের স্থলের পিছনের খাল থেকে কোন পানির সরবরাহের পথ না পাওয়ায় প্রায় ২০ মিনিট বিলম্বে স্থানীয় প্রতাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের পুকুর থেকে পানির ব্যবস্থা করে।

বৈদ্যুতিক সর্টসার্কিট থেকেই আগুনের সুত্রপাত হতে পারে বলে স্থানীয়রা জানায়। ঘটনা জানার সাথে সাথে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে ফজলুল হক ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং সার্বিক তদারকি করে।

লক্ষ্মীপুরের একটি ফায়ার ইউনিট প্রায় ২ঘন্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। প্রায় ১০টি দোকান একেবারে ভস্মীভূত হয়ে যায়। তবে ক্ষয় ক্ষতির বিষয়ে এখনো সঠিক ভাবে জানা যায় নি। পাশের চৌমুহনী ফায়ার ইউনিটকে এ বিষয়ে জানানো হলে যে কোন অদৃশ্য কারনে তারা ঘটনাস্থলে আসেনি।

লক্ষ্মীপুর ফায়ার সার্ভিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত ওয়াসি আজাদ জানান, আমরা রাত ৩টা ২৬ মিনিটে চন্দ্রগঞ্জের অগ্নিকান্ডের বিষয়ে খবর পািই এবং দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছাই, পানির সরবরাহের জন্য একটু বিলম্ব হয়। ১০টি দোকান একেবারে পুড়ে যায়, ক্ষয়ক্ষতির বিষয় তদন্ত সাপেক্ষে জানানো হবে।

এদিকে চন্দ্রগঞ্জ বাজারের দক্ষিণ পাশের খালের উপর নির্মিত এইসব দোকানের পিছনে কোন সিড়ির ব্যবস্থা করা নাই যে, ফায়ার সার্ভিস তাদের পাইপটি স্থাপন করবে। বর্তমানে এলাকাবাসী ও বাজারের ব্যবসায়ীদের জোরালো দাবী অনতিবিলম্বে খালের সাথে জরুরী প্রয়োজনে পানির জন্য যেন সিঁড়ির ব্যবস্থা করা হয় এবং বাজার কমিটির উদ্যোগে যেন বর্তমান সময় উপযোগী আগুন নির্বাপক যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করা হয়।

এ বিষয়ে চন্দ্রগঞ্জ বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক মাওঃ আব্দুল কুদ্দুছ জানান, ফায়ার সার্ভিস এবং স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে। আর খালের সাথে সিঁড়ি এবং অগ্নি নির্বাপক সামগ্রীর বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন