অক্টোবর ৭, ২০২২

মুক্তিকন্ঠ

ভয়েস অফ ফ্রিডম ফাইটার ১৯৭১

চন্দ্রগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

মুক্তিকন্ঠ ডেস্কঃ

লক্ষ্মীপুর জেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন ঐতিহ্যবাহী চন্দ্রগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ ঘটিকার সময় চন্দ্রগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির কার্যালয়ে এই সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন ১০নং চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও চন্দ্রগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি নুরুল আমিন। সভা পরিচালনা করেন চন্দ্রগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সচিব মোহাম্মদ হাছান এবং সঞ্চালনা করেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য গৌতম চন্দ্র মজুমদার।

বাজারের বিভিন্ন সমস্যা ও প্রতিকার নিয়ে বক্তব্য রাখেন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি নুরুল আমিন, সদস্য সচিব মোহাম্মদ হাছান, সদস্য মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য হাজী মোঃ মহি উদ্দিন, বাবু গৌতম চন্দ্র মজুমদার, সদস্য মোঃ সাহাব উদ্দিন, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য ও চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ শফিকুল ইসলাম শিপন, সদস্য মোরশেদ আলম, বাজারের ব্যবসায়ী মোঃ শামছূল আলম বিত্ত, নাছির আলম রিমন, মোঃ সোহাগ, বাবু ভাষান কর্মকার, বাবু, বাবু প্রদীপ কুরীসহ অনেকে।

এছাড়াও  সভায় উপস্থিত ছিলেন চন্দ্রগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বাবুল পাল, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী প্রদীপ কুরী, ভাষাণ কর্মকার, প্রণতোষ কর্মকার, বেলায়েত হোসেন, মো. হানিফ, মো. হারুন, মো. দেলোয়ার হোসেন, মো. রাজু, মো. সোহাগ, মোঃ দোলোয়ার, মোহাম্মদ সেলিম, শংকর দেবনাথ, বিধান পাল, আব্দুল কুদ্দুছ, মো. মানিক হোসেন, মানিক দেবনাথ, মো. মামুনুর রশিদ, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নুর হোসেন, বাজার ব্যবাসায়ী রাসেল হোসেন, বিশিষ্ট বস্ত্র ব্যবসায়ী কার্তিক চন্দ্র দেবনাথ,  সাংবাদিক তানভীর আহম্মেদ রিমন, চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও চন্দ্রগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মো. তাজুল ইসলাম ভূইয়া, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মমিন মিয়াসহ আরো অনেক গন্যমান্য ব্যবসায়ীবৃন্দ।

উপস্থিত ব্যবসায়ীরা তাদের বক্তব্যে কয়েকটি বিষয় তুলে ধরেন, যেমন- চন্দ্রগঞ্জ বাজারের ফুটপাতের পরিকল্পিত পুনর্বাসন করা , ছাগল হাটার অস্থায়ী জায়গায় স্থায়ী মুদি দোকান গুলো অপসারন করা, বাজারের যানযট নিয়ন্ত্রণ করা, চন্দ্রগঞ্জ পশ্চিম বাজারে ও বাধের গোড়া থেকে গরু হাটার মধ্যে ২টা টয়লেটের ব্যবস্থা করা, বাস কাউন্টার গুলো অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া, চন্দ্রগঞ্জ পাবলিক টয়লেটে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া, বাজার ব্যবসায়ী যারা বাজারে থাকে তাদের গোসলের জন্য ডাক বাংলা পুকুর উন্মুক্ত করা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, বাজার ঠিক মত পরিষ্কার করা হয় না, ইজারাদার কর্তৃক অতিরিক্ত খাজনা আদায়, গরু হাটা থেকে পোষ্ট অফিস পর্যন্ত সড়ক মেরামত, যত্রতত্র তরকারী দোকান বসা, যেখানে সেখানে মাছ দোকান বসা, বাজারে নাইট গার্ডের স্বল্পতা ইত্যাদি।

সর্বশেষ অনুষ্ঠানের সভাপতি ও চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উপস্থিত সকল ব্যবসায়ীকে আশ্বাস দেন, যে সমস্যা গুলো নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে সেগুলো উপজেলা সদরে প্রেরণ করা হবে এবং ইউএনও মহোদয়ের সাথে আলোচনা করে দ্রুত এই সমস্যা গুলো সমাদানের চেষ্টা করবেন। এছাড়াও তিনি ব্যবসায়ীদের যেকোন সমস্যার সমাধান ও বাজার উন্নয়নের জন্য সব ধরনের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত আছেন বলে জানায়। পাশাপাশি বণিক সমিতি গঠন ও বণিক সমিতির কার্যক্রম দ্রুত ত্বরান্বিত করার জন্যও আহ্বান জানান সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের।

শেয়ার করুন

আরও পড়তে পারেন..