অক্টোবর ৭, ২০২২

মুক্তিকন্ঠ

ভয়েস অফ ফ্রিডম ফাইটার ১৯৭১

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের আকস্মিক চন্দ্রগঞ্জ বাজার পরিদর্শন, ৩ দিনের মধ্যে টোল চার্ট টাঙ্গানোর নির্দেশ

জেলা প্রশাসকের মাছ বাজার পরিদর্শন কালে

মুক্তকন্ঠ ডেস্ক:
লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোছাইন আকন্দ বৃহস্পতিবার বিকালে আকস্মিক চন্দ্রগঞ্জ বাজার পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি বাজারের মাছ বাজার সহ কিছু এলাকা পরিদর্শন করেন এবং বাজারের ক্রেতা বিক্রেতাদের সাথে টোল আদায় সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন।
পরিদর্শন কালে জেলা প্রশাসক শীঘ্রই চন্দ্রগঞ্জ মাছ বাজারের ঝরাজীর্ণ সেড ভেঙ্গে বহুতল সেড নির্মাণ করা হবে বলে জানান।

এসময় উপস্থিত মাছ ব্যবসায়িরা জেলা প্রশাসকের নিকট ইজারাদার কর্তৃক তাদের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত হার থেকে অতিরিক্ত টোল আদায় করা হচ্ছে মর্মে অভিযোগ করেন। এতে জেলা প্রশাসক ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে ইজারাদারকে তিন দিনের মধ্যে বাজারে সরকার নির্ধারিত ইজারার হার সম্বলিত সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন।

এছাড়ও বাজারের ইজারাদার ছাত্রলীগ নেতা কাজী বাবলু আত্নপক্ষ সমর্থন করে কথা বলতে গেলে জেলা প্রশাসক তাকে ইজারা বাতিল করে দেওয়া হবে মর্মে ধমক প্রদান করেন। জেলা প্রশাসক এ সময় বাজারের ময়লা আবর্জনা দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং প্রয়োজনে ইজরাদারের জামানতের ৫% কেটে নেওয়ার জন্যও বলেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোছাইন আকন্দ পরিদর্শন কালে চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মোঃ নুরুল আমিনকে বাজারের উন্নয়নে জোরালো ভুমিকা রাখার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

জেলা প্রশাসক উপস্থিত লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এমরান হোসেনকে ইউপি চেয়ারম্যানকে সাথে নিয়ে বাজারের সরকারি সেড সহ সরকারি ভুমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

এর আগে জেলা প্রশাসক চন্দ্রগঞ্জ বাজারের দুটি পূঁজা মন্ডপ সরোজমিনে পরিদর্শন করেন। এ সময় জেলা প্রশাসকের সাথে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ছাড়াও জেলা প্রশাসনের কয়েকজন কর্মকর্তা এবং বাজারের হিন্দু ধর্মাবলম্বী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন

আরও পড়তে পারেন..