নভেম্বর ২৬, ২০২২

মুক্তিকন্ঠ

ভয়েস অফ ফ্রিডম ফাইটার ১৯৭১

চন্দ্রগঞ্জে অপহরণের ১ দিন পরেই প্রতাপগঞ্জ স্কুলের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী উদ্ধার, বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা!

(বিবাদী অপু ভূইয়া)

মুক্তিকন্ঠ ডেস্ক:

লক্ষ্মীপুরের  প্রতাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের  ৮ম শ্রেণীর মেঘনা শাখার ছাত্রী জান্নাতুন নাঈম ইকরা(১৩) অপহরণের ১দিনের মাথায় উদ্ধার করেছে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ। তবে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভিকটিমের অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

রবিবার (০২ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে বিবাদী অপু ভূইয়া ও ভিকটিম ইকরাকে ‍উদ্ধার করতে সমর্থ্য হয় চন্দ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) দুলাল মিয়া ও সঙ্গীয় ফোর্স।

এজাহারসূত্রে ও স্থানীয়ভাবে জানা যায়, গত শনিবার (০১ অক্টোবর) দুপুর আনুমানিক ১টা ৩০মি. এর সময় চন্দ্রগঞ্জ বাজারের কামার ক্ষেত এলাকায় প্রতাপগঞ্জ স্কুলের খন্ডকালীন শিক্ষক স্বপন স্যারের বাসায় প্রাইভেট পড়া শেষ করে বাড়ি যাওয়ার পথে বিবাদী অপু ভূইয়াসহ তার অনুগত অজ্ঞাতনামা ২/৩জন বখাটেসহ ভিকটিম ইকরাকে জোর করে সিএনজিতে তুলে নিয়ে যায়।

এদিকে মেয়ে অপহরণের পরের দিনই ভিকটিমের বাবা প্রতাপগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সিরাজুল ইসলাম বরাবর বিষয়টি অবগত করে একটি দরখাস্ত করে। তখন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, আমি কমিটির সাথে আলাপ করে কি করা যায় সিদ্ধান্ত নিব। কিন্তু পরিতাপের বিষয় বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বা অন্য কোন কর্তৃপক্ষ একবারের জন্য তাদের ছাত্রীর অপহরণের বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা দুরের কথা কোন খোঁজ খবরও নেয় নি।

ভিকটিমের মা বিবি ফাতেমা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধিত ২০২০) এর ৭/৩০ ধারায় বিবাদী অপু ভূইয়া ও অজ্ঞাতনামা ২/৩ জনের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে। চন্দ্রগঞ্জ থানার মামলা নং-৩, তাং-০৩/১০/২০২২ইং। উল্লেখিত বিবাদী অপু ভূইয়া চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন পাঁচপাড়া গ্রামের ভূইয়া বাড়ির রুহুল আমিনের ছেলে। স্থানীয়ভাবেও অপু ভূইয়ার নামে নারী কেলেকাংরী, ইভটিজিং, চুরিসহ বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে জানা যায়।

ভিকটিমের বাবা-মা এ বিষয়ে জানান, আমার মেয়ে অপহরণের  পর পরই চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে আমার মেয়েকে উদ্ধার করে, এজন্য আমি লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ তথা চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশকে ধন্যবাদ জানাই।

চন্দ্রগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মোসলেহ্ উদ্দিন জানান, আমরা দ্রুত সময়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করেছি এবং তাকে আদালতে প্রেরণ করেছি।  বিবাদী অপু ভূইয়ার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে এবং বিবাদীকে পুলিশি পহারায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন