ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩

মুক্তিকন্ঠ

ভয়েস অফ ফ্রিডম ফাইটার ১৯৭১

লক্ষ্মীপুরে বাচ্চাদের ভয় দেখাতে গিয়ে ফাঁস লেগে ৩ সন্তানের জননীর মৃত্যু

মুক্তিকন্ঠ ডেস্কঃ

চন্দ্রগঞ্জে রেহানা আক্তার (৩০) নামের এক গৃহিনীর গলায় ফাঁস লেগে মৃত্যু হয়েছে।
রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকাল ১১ ঘটিকার সময় হানিফ মিয়ার ভাড়া বাসার ৪ তলায় এ ঘটনা ঘটে।
জানাযায়, রেহানার স্বামী নাছির উদ্দিন চন্দ্রগঞ্জে একটি বেসরকারী ব্যাংকে চাকুরী করে। স্বামী ব্যাংকে যাওয়ার পর বাচ্চারা দুষ্টমি করতেছিল। এসময় রেহানা বাচ্চাদের বলে তোমরা দুষ্টমি করলে মা মরে যাবো। এই বলে তিনি খাটের সাথের জানালার সাথে ওড়না পেছালে পা পিছলে খাট থেকে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই রেহানার মৃত্যু হয় । বিষয়টি নিশ্চিত করেন রেহানার বড় মেয়ে জান্নাতুন নাঈম(৮)।
পরে রেহানার বড় মেয়ে জান্নাতুন নাঈম মায়ের মুখে রক্ত দেখে বাবাকে ফোন করে, বাবা নাছির উদ্দিন ব্যাংক থেকে বাসায় এসে দেখে রেহানা গলায় ফাঁস লেগে ঝুলে আছে। পরে নাছির ঝুলন্ত রেহানাকে খাটে নামিয়ে ডাক্তার আনে, ডাক্তার রেহানাকে মৃত ঘোষণা করে।
জান্নাতুন নাঈম জানায় আমি ভাবছি মা আমাদের সাথে দুষ্টমি করছে। জান্নাতের ছোট ভাই ওসমান গণি (৫), ছোট বোন ফাতেমা আক্তার তাবাচ্ছুম (০১) উপস্থিত সবার মুখের দিকে নির্বাক হয়ে তাকিয়ে আছে।

উল্লেখ্য, রেহানার গ্রামের নোয়াখালীর জেলার সেনবাগ থানার অর্জুনতলা গ্রামের  মৃত আঃ সাত্তারের মেয়ে, তার স্বামীর বাড়ি ফেনী জেলার পশুরামপুর থানায়।
চন্দ্রগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) দুলাল কিশোর মজুমদার জানান, আমরা লাশ থানায় নিয়ে আসছি, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ময়নাতদন্তের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, যদি উভয় পক্ষের কোন অভিযোগ না থাকে তাহলে মৃতার অভিভাবকের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

শেয়ার করুন